Leave a comment

যেসব কারণে যানবাহনের বিরুদ্ধে জরিমানা/মামলা হতে পারে!!Fine for violating traffic rules & Power of arrest without warrant under motor vehicle Act 1983

একটি জরুরী ঘোষনা–
সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী আপনি যদি ড্রাইভিং লাইসন্স বা গাড়ীর কাগজপত্র সাথে না থাকা অবস্হায় ট্রাফিক সার্জেণ্টের কাছে চ্যালেন্জের মুখামুখি  হন তাহলে সাথে সাথে ফাইন দিবেন না। আইনগত  কাগজ দেখানোর জন্য আপনি ১৫ দিন সময় পাবেন। চালান কাটার তারিখ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে কাগজপত্র দেখালে ওই চালান বাতিল হয়ে যাবে।
————————————
যানবাহন আটক,মামলা,জরিমানা সংক্রান্ত বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হল —

যেসব কারণে যানবাহনের বিরুদ্ধে জরিমানা/মামলা হতে পারে :-

ট্রাফিক আইন ভাঙাসহ বিভিন্ন কারণে পুলিশ গাড়ি আটক করে করে থাকে। গাড়ি আটক হলে অনেকেই ঘাবড়ে যান, মনে করেন গাড়ি ছাড়িয়ে আনা বেশ ঝামেলার কাজ। অনেকে আবার উৎকোচ দিয়ে কাল্পনিক ঝামেলার  হাত থেকে বাঁচার চেষ্টা করেন।

পুলিশ বিভিন্ন কারণে আপনার গাড়ি আটক করতে পারে, যেমন, সঠিক জায়গায় গাড়ি পার্ক না করা, বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, চলতে গিয়ে পুলিশের নির্দেশনা না মানা, গাড়ির ফিটনেস সংক্রান্ত কাগজপত্র নবায়ন না করা, ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়ন না করা ইত্যাদি।

গাড়ি আটক করার সময় পুলিশ একটি বা দু’টি কাগজ জব্দ করবে এবং আপনাকে একটি রশিদ দেবে। ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের চারটি জোন রয়েছে, উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব এবং পশ্চিম। পুলিশের দেয়া রশিদের পেছনেই লেখা থাকবে কোন জোনের ট্রাফিক পুলিশ আপনার গাড়িটি আটক করলো। আপনাকে সেই জোনের অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করতে হবে। রশিদের পেছনে জোন ভিত্তিক উপস্থিতির সময়ও লেখা থাকে। কাজেই সে অনুয়ায়ী গেলে আপনার সময় বাঁচবে। তবে অন্তত চার-পাঁচদিন পরে যাওয়াই ভালো, কারণ কাগজপত্র সংশ্লিষ্ট অফিসে পৌঁছাতে সাধারণত তিন-চারদিন সময় লাগে।
কোথায়, কি অপরাধে জরিমানা করা হল, কে জরিমানা করলেন, কত তারিখের মধ্যে হাজির হতে হবে সব কিছুই লিখে দেয়া হয় রশিদটিতে। সংশ্লিষ্ট জোনের ডেপুটি কমিশনার জরিমানা নির্ধারণের মাধ্যমে বিষয়টির নিষ্পত্তি করে থাকেন। এসব ক্ষেত্রে আপনি আপনার অনুকূলে বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরতে পারেন। ডেপুটি কমিশনার পূর্ণ জরিমানার চার ভাগের এক ভাগ পর্যন্ত জরিমানা নির্ধারন পারেন, এমনকি জরিমানা মওকুফও করে দিতে পারেন। তবে আপনার ড্রাইভারকে রশিদসহ পাঠিয়ে জরিমানা দিয়ে আসাটাই বেটার অপশন বলা যায়। জরিমানা দেবার জন্য ডেপুটি পুলিশ কমিশনার অফিস থেকে আরেকটি রশিদ দেয়া হবে আপনাকে।
 
তবে জরিমানা না দিলে বা যথাসময়ে হাজির না হলে অপরাধের ধরন, ঘটনাস্থল ইত্যাদির প্রতিবেদন সহকারে মামলাটি আদালতে প্রেরণ করা হবে ওয়ারেন্ট ইস্যু করার জন্য। এসব ক্ষেত্রে জরিমানা নির্ধারনের পর আপনি যদি মনে করেন আপনার ওপর অন্যায় করা হয়েছে তবে আদালতেও যেতে পারেন। সামান্য জরিমানার জন্য আদালতে গিয়ে আর্থিক বিচারে আপনার কোন ফায়দা হবে না, তবে রায় আপনার অনুকূলে গেলে সেটি আপনার জন্য একটি নৈতিক বিজয় হবে। বলাহুল্য এত ঝামেলা করে কেউ সাধারণত জরিমানা চ্যালেঞ্জ করতে আদালতে যায় না।

যানবাহনের মামলা–
সড়কে চলাচলের ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে কিছু নিয়মনীতি মেনে চলতে হয়। এসব নিয়ম না মানলে নিয়ম ভঙ্গকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবার দায়িত্ব পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের। বিভিন্ন নিয়মভঙ্গের কারণে পুলিশ বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিয়ে থাকে।
 
যেসব কারণে যানবাহনের বিরুদ্ধে মামলা হতে পারে–

বৈধ কাগজপত্র না থাকলে-
রেজিষ্ট্রেশন সার্টিফিকেট, ফিটনেস সার্টিফিকেট, ট্যাক্স টোকেন, ইন্স্যুরেন্স, সাধারণ পরিবহনের জন্য রুট পারমিট, সর্বোপরি চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি না থাকলে মটরযান আইনে মামলা হতে পারে। এগুলোকে ডকুমেন্টারি মামলা বলা হয়।

ভুল করা বা ট্রাফিক আইন না মানা-ট্রাফিক সিগন্যাল/লাইট না মেনে গাড়ী চালানো, বিপদজনকভাবে দ্রুত গতিতে গাড়ী চালানো, যখন তখন লেন পরিবর্তন করা, গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোনে কথা বলা, হেলমেট ছাড়া মটরসাইকেল চালানো ইত্যাদি কারণে মামলা হতে পারে।

যানবাহনের ত্রুটি-
যানবাহনের বিভিন্ন ত্রুটি যেমন হেডলাইট না জ্বলা বা না থাকা, ইন্ডিকেটর লাইট না থাকা বা না জ্বলা, সাধারণ পরিবহন/গাড়ীর বডিতে পার্টিকুলার বা বিবরণ না থাকা, মালিক বা মালিকের নাম ঠিকানা না থাকা, গাড়ীতে অতিরিক্ত আসন সংযোজন অথবা গাড়ীতে বিআরটিএ অনুমোদন ছাড়া কোন সংযোজন বা পরিবর্তন করা, ইত্যাদি কারণে যানবাহন মামলা হতে পারে।
 
যানবাহনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসমূহ:-

মটর সাইকেল–
R/C –  রেজিষ্ট্রেশন সার্টিফিকেট
I/C  ইন্সুরেন্স সার্টিফিকেট
T/T –  ট্যাক্স টোকেন
D/L –  ড্রাইভিং লাইসেন্স
 
মাইক্রো/কার/বাস ভাড়ায় ব্যবহৃত হলে–
R/C –  রেজিষ্ট্রেশন সার্টিফিকেট
F/C – ফিটনেস সার্টিফিকেট
R/P – রুট পারমিট
T/T – ট্যাক্স টোকেন
D/L – ড্রাইভিং লাইসেন্স
I/C – ইন্সুরেন্স সার্টিফিকেট
 
মাইক্রো/কার/বাস ভাড়ায় ব্যবহৃত না হলে–
R/C –  রেজিষ্ট্রেশন সার্টিফিকেট
F/C – ফিটনেস সার্টিফিকেট
T/T – ট্যাক্স টোকেন
D/L – ড্রাইভিং লাইসেন্স
I/C – ইন্সুরেন্স সার্টিফিকেট
 
মামলা:-
মামলা করা প্রয়োজন  এবং যথাযথ মনে করলে কর্তব্যরত যেকোন পুলিশ কর্মকর্তা এই মামলা করতে পারেন। রাস্তায় তাৎক্ষণিক মামলার ক্ষেত্রে মামলা প্রদানকারী কর্মকর্তা যানবাহনের একটি ডকুমেন্ট জব্দ করেন। তবে দূর্ঘটনার ক্ষেত্রে মটরযান আইন ছাড়াও নিয়মিত মামলা হতে পারে।
 
মামলা হলে করনীয়:-
যে কোন আইন ভাঙার জন্য মামলা হতে পারে। ডকুমন্টারি বা অন্য কোন কারণে মটরযান আইনে মামলা হলে সেটা বিশেষ উদ্বেগজনক কিছু নয়।

ঢাকা শহরে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের চারটি জোন বা এলাকা (পূর্ব, পশ্চিম, উত্তর, দক্ষিণ) আছে। একজন ডেপুটি কমশনার (ডিসি ট্রাফিক) প্রতিটি জোনের  দায়িত্বে আছেন। কাজেই যেকোন মামলার ক্ষেত্রে আগে বিবেচনা করতে হবে সেটি কোন এলাকার আওতাভুক্ত। কোন ট্রাফিক বিভাগের অধীনে মামলা হয়েছে সেটা জরিমানার সময় যে টিকেট দেয়া হয় তার পেছনে লেখা থাকে।

সংশ্লিষ্ট জোনের ডেপুটি কমিশনারের দপ্তরে গিয়ে কিছু দাপ্তরিক কাজ সম্পাদনের মাধ্যমে খুব সহজেই মামলা নিষ্পত্তি করা যায়। এক্ষেত্রে নির্দিষ্টভাবে জরিমানা প্রদান করতে হবে। বিচারক অথবা ডিসি ট্রাফিক জরিমানার অংক নির্ধারন করেন। জরিমানা নির্ধারনকারী পূর্ণ জরিমানার ৪ ভাগের ১ ভাগ পর্যন্ত জরিমানা করতে পারেন, এমনকি মওকুফও করতে পারেন। জরিমানা প্রদানের পরপরই জব্দ হওয়া ডকুমেন্ট বুঝে নেয়া দরকার।
 
বিভিন্ন ক্ষেত্রে জরিমানার পরিমাণ:-

ধারা–
১৩৭
অপরাধের শাস্তি প্রদানের সাধারণ বিধান
২০০ টাকা

১৩৯
নিষিদ্ধ হর্ণ কিংবা শব্দ সৃষ্টিকারী যন্ত্র লাগানো
১০০ টাকা

১৪০
‌আদেশ অমান্য, বাধা সৃস্টি ও তথ্য প্রদানের অস্বীকৃতি
৫০০ টাকা

১৪২
নির্ধারিত গতির চেয়ে দ্রুত গতিতে গাড়ী চালনা
৩০০ টাকা

১৪৬
দূর্ঘটনা সংক্রান্ত অপরাধ
৫০০-১০০০ টাকা

১৪৯
নিরাপত্তাহীন অবস্থায় গাড়ী ব্যবহার
৩০০ টাকা

১৫০
ধোঁয়া বের হওয়া মটরযান ব্যবহার
২০০ টাকা

১৫১
এ অধ্যাদেশের সাথে সংগতিহীন অবস্থায় গাড়ী
বিক্রয় অথবা গাড়ীর পরিবর্তন সাধন
বিক্রয়ে ৫,০০০টাকা
পরিবর্তনে ১২৫০ টাকা

১৫২
রেজিষ্ট্রেশন, ফিটনেস সার্টিফিকেট অথবা
পারমিট ছাড়া মটরগাড়ী ব্যবহার।
৭০০ টাকা।

১৫৩
অনুমোদিত এজেন্ট ও ক্যানভাসার
৩০০ টাকা

১৫৪
অনুমোদিত ওজন অতিক্রমপূর্বক গাড়ী চালনা
৫০০-১০০০ টাকা

১৫৫
বীমা ছাড়া বা মেয়াদ উত্তীর্ণের জন্য
৫০০-২০০০ টাকা

১৫৬
ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ী চালনা
৫০০-১০০০ টাকা

১৫৭
প্রকাশ্য সড়কে অথবা প্রকাশ্য স্থানে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি
২৫০-৫০০ টাকা

১৫৮
মটরযানে অননুমোদিত হস্তক্ষেপ
৫০০-১০০০ টাকা

 
ওয়ারেন্ট–
নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে মামলা নিস্পত্তি না করা হলে ওয়ারেন্ট ইস্যুর জন্য সংশ্লিষ্ট আদালতে মামলা প্রেরণ করা হয়। আদালত থেকে ওয়ারেন্ট ইস্যুর পর পুলিশ কর্মকর্তাগণ  রাস্তায় সংশ্লিষ্ট গাড়িটি আটক করে এবং ওয়ারেন্ট ইস্যুর পর গাড়িটি ছেড়ে দেয়।
 
ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তি:–
ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তির কাজটিও কঠিন নয়। ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তির পর জন্য ওয়ারেন্ট নম্বরটি নিয়ে সংশ্লিষ্ট কোর্টে হাজির হয়ে GRO এর মাধ্যমে কিছু আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে হয়।

Fine for violating traffic rules in Bangladesh:-

Here is a list of the fine you need to pay if you violate any traffic rule in Bangladesh. The fine will be double, if you caught by any special traffic police, check post, or police petrol car.

137 – General fine – 200 Tk.

139 – Using hydrolic horn – 100 Tk.

140 – Disobey police order, refusal to cooperate – 500 Tk. (Same as special fine.)

140 – Disobeying red signal – 500 Tk.(Same as special fine.)

142 – Careless driving – 300 Tk.

146 – Accident related fine – 500 Tk.

149 – Driving without safety – 300 Tk.

150 – Black smoke emission – 200 Tk.

151 – Modification of car and sale without permission – 1250 Tk.

152 – Driving without registration, fitness, or route permit – 700 Tk.

154 – Overloading the car – 500 Tk.

155 – Driving without insurance – 500 Tk.

156 – Driving without permission – 500 Tk.

157 – Blocking road or public place – 250 Tk.

158 – Unauthorized touch/use of car – 250 Tk.

000 – Lane violation – 1,000 Tk.

Power of arrest without warrant under motor vehicle Act 1983:-

Section-160-

(1) A police officer in uniform may arrest without warrant any person who commits in his view an offence punishable under section 32 or section 51 or section 143 or section 144 or section 145 or section 146 or section 147 or section 148 or section 149 or section 154 or section 156.

(2) A police officer in uniform may arrest without warrant-

(a) any person who being required under the provisions of this Ordinance to give his name and address refuses to do so, or gives a name or address which the police officer has reason to believe to be false, or

(b) Any person concerned in an offence under this Ordinance or reasonably suspected to have been so concerned, if the police officer has reason to believe that he will abscond or otherwise avoid the service of a summons.

(3) A police officer arresting without warrant the driver of a motor vehicle shall, if the circumstances so require, take or cause to be taken any steps he may consider proper for the safe custody of the vehicle or to take it to the nearest Police station.

(4) A police officer acting under this section shall, as soon as possible, intimate to the owner the place where the vehicle has been removed or where the driver has been taken and in any case within twenty four hours of the occurrence.

Note-
Section32-Necessity for registration
Section 51- Necessity for permits
Section 143- Driving recklessly or dangerously
Section- 144 Driving while under the influence of drink or drug
Sec-145 -Driving when mentally or physically unfit to drive
Section-146.Punishment for offence relating to accidents
Section-147. Punishment for abetment of certain offences
Section-148 Racing or a trial of speed
Section-149 Using vehicle in unsafe condition
Section 154- Driving vehicles exceeding permissible weight
Section 156- Taking vehicle without authority

Analysis:

Section32-Necessity for registration:  

No person shall drive any motor vehicle and no owner of a motor vehicle shall cause or permit the vehicle to be driven in any public place or in any other place for the purpose of carrying passengers or goods unless the vehicle is registered in accordance with this chapter and the certificate of registration of the vehicle has not been suspended or cancelled and the vehicle carries a registration mark displayed in the prescribed manner.

Section 51- Necessity for permits:  

No owner of transport vehicle shall use or permit the use of the vehicle in any public place, save in accordance with the conditions of a permit granted or countersigned by a Transport Committee authorising the use of the vehicle in that place in the manner in which the vehicle is being used:
Provided that a stage carriage permit shall, subject to any conditions that may be specified in the permit, authorize the use of the vehicle as a contract carriage:
Provided further that a stage carriage permit may, subject to any conditions that may be specified in the permit, authorise the use of the vehicle as a goods vehicle either when carrying passengers or not:
Provided further that a public carrier’s permit shall, subject to any conditions that may be specified in the permit authorise the holder to use the vehicle for the carriage of goods for or in connection with a trade or business carried on by him.

(2) In determining, for the purpose of this Chapter whether a transport vehicle is or is not used for the carriage of goods for hire or reward, –

(a) the delivery or collection by or on behalf of the owner of goods sold, used or let on hire or hire purchase in the course of any trade or business carried on by him other than the trade or business of providing transport,

(b) the delivery or collection by or on behalf of the owner of goods which have been or are to be subjected to a process or treatment in the course of a trade or business carried on by him, or

(c) the carriage of goods in a transport vehicle by a manufacturer of or agent or dealer in such goods whilst the vehicle is being used for demonstration purposes, shall not be deemed to constitute a carrying of the goods for hire or reward; but the carriage in a transport vehicle of goods by a person not being a dealer in such goods who has acquired temporary ownership of the goods for the purposes of transporting them to another place and their relinquishing ownership shall be deemed to constitute a carrying of the goods for hire or reward.

(3) Sub section (1) shall not apply- (a) to any transport vehicle owned by or on behalf of the Government other than the vehicles used for Government purposes connected with any commercial enterprises;

(b) to any transport vehicle owned by a local authority or by a person acting under contract with a local authority and used solely for road cleansing, road watering or conservancy purposes;

(c) to any transport vehicle used solely for police, fire brigade or ambulance purposes;

(d) to any transport vehicle used solely for the conveyance of corpses;

(e) to any transport vehicle used for towing a disabled vehicle or for removing goods from a disabled vehicle to a place of safety;

(f) to any transport vehicle used for any other public purpose prescribed in this behalf ;

(g) to any transport vehicle used by a person who manufactures or deals in motor vehicles or builds bodies for attachment to chassis, solely for such purposes and in accordance with such conditions as the 58[ Authority] may, by notification in the official Gazette, specify in this behalf ;

(h) to any transport vehicle owned by, and used solely for the purposes of, any educational institution which is recognised by the Government or whose managing committee is a society registered under the Societies Registration Act, 1860 (XXI of 1860);

(i) to any goods vehicle which is a light motor vehicle and does not ply for hire or reward, or not used for any commercial purposes or to any two wheeled trailer with a registered laden weight not exceeding 2,240 pounds avoirdupois drawn by a motor car;

(j) to any transport vehicle which has been temporarily registered under section 36, while proceeding empty to any place for the purpose of registration of the vehicle under section 34;

(k) to any transport vehicle which, owing to any natural calamity, is required to be diverted through any other route, whether within or outside a region with a view to enabling it to reach its destination; or

(l) to any transport vehicle used for such purposes other than plying for hire or reward or used for any commercial purposes as the 59[ Authority] may, by notification in the official Gazette, specify. (4) Subject to the provisions of sub section (3), sub section (1) shall, if the 60[ Authority by regulations] made under section 81 so prescribed, apply to any motor vehicle adopted to carry more than eight persons excluding the driver.

Section 143- Driving recklessly or dangerously:  

Whoever drives a motor vehicle at a speed or in a manner which is dangerous to the public, having regard to all the circumstances of the case including the nature, condition and use of the place where the vehicle is driven and the amount of traffic which actually is at the time or which might reasonably be expected to be in the place, shall be punishable on a first conviction for the offence with imprisonment for a term which may extend to 134[ six months], or with fine which may extend to 135[ five hundred] Taka, and his driving licence shall be suspended for a specified period, and for a subsequent offence if committed within three years of the commission of a previous similar offence with imprisonment for a term which may extend to 136[ six months], or with fine which may extend to 137[ one thousand] Taka, or with both, and his driving licence shall be 138[ suspended for a period not exceeding one month].

Section- 144 Driving while under the influence of drink or drug:  

139[Whoever while driving or attempting to drive a motor vehicle is under the influence of drink or drug to such extent as to be incapable of exercising proper control over the vehicle, shall be punishable for a first offence with imprisonment which may extend to three months, or with fine which may extend to one thousand Taka, or with both, and for a subsequent offence with imprisonment which may extend to two years, or with fine which may extend to one thousand Taka, or with both and his driving licence shall be suspended for a specified period.]

Sec-145 Driving when mentally or physically unfit to drive:  

Whoever drives a motor vehicle in any public place when he is to his knowledge suffering from any disease or disability calculated to cause his driving of the vehicle to be a source of danger to the public, shall be punishable 140[ for a first offence with fine which may extend to five hundred Taka and his driving licence shall be suspended for a specified period and for a subsequent offence with imprisonment for a term which may extend to three months, or with fine which may extend to five hundred Taka or, with both].

Section-146.Punishment for offence relating to accidents:  

Whoever fails to comply with the provisions of clause (c) of sub section (1) of section 102 or, of section 104 shall be punishable with imprisonment for a term which may extend to 141[ three months], or with fine which may extend to 142[ five hundred] Taka, or with both or, if having been previously convicted of an offence under this section, with imprisonment for a term which may extend to 143[ six months], or with fine which may extend to 144[ one thousand] Taka, or with both.

Section-147. Punishment for abetment of certain offences:  

Whoever abets the commission of an offence under section 143, or 145, shall be punishable with the punishment provided for the offence.

Section-148 Racing or a trial of speed:  

Whoever without the written consent of the Government permits or take part in a race or trial of speed between motor vehicles in any place shall be punishable with imprisonment for a term which may extend to 145[ one month], or with fine which may extend to 146[ five hundred] Taka, or with both, and his driving licence shall be suspended for a period which may extend to 147[ one month].

Section-149 Using vehicle in unsafe condition-  

Any person who drives or causes or allows to be driven in any public place a motor vehicle or trailer while the vehicle or trailer has any defect, which such person knows of or could have discovered by the exercise of ordinary care and which is calculated to render the driving of the vehicle a source of danger to persons and vehicles using such place, shall be punishable with imprisonment for a term which may extend to one month or with fine which may extend to two hundred and fifty Taka, or with both, or, if as a result of such defect an accident is caused, causing bodily injury or damage to property, with imprisonment which may extend to three months, or with fine which may extend to one thousand Taka, or with both.]

Section 154- Driving vehicles exceeding permissible weight:  

Whoever drives a motor vehicle or causes or allows a motor vehicle to be driven in contravention of the provisions of section 86 or of the conditions prescribed under that section or in contravention of any prohibition or restriction imposed under section 86 or section 88 shall be punishable for a first offence with fine which may extend to one thousand Taka and for any subsequent offence with imprisonment for a term which may extend to six months, or, with fine which may extend to two thousand Taka, or with both.]

Section 156- Taking vehicle without authority:

Whoever takes and drives away any motor vehicle without having either the consent of the owner thereof or other lawful authority shall be punishable with imprisonment which may extend to 157[ three months] or with fine which may extend to 158[ two thousand] Taka, or with both.

লেখক :
সোয়েব রহমান
এলএল.এম.
অ্যাডভোকেট
Posted from Advocate Shoaibur Rahman Shoaib

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: